গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি এবং জাতীয় ও গণ স্বার্থবিরোধী বাজেট ২০১৯-২০ সংসদে পাশ করায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ ময়মনসিংহ জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট (এনডিএফ)

Date:

Share post:

পূর্বময় ডেস্ক ঃ গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি এবং জাতীয় ও গণ স্বার্থবিরোধী বাজেট ২০১৯-২০ সংসদে পাশ করায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন ময়মনসিংহ জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট (এনডিএফ) এর নেতৃবৃন্দ। আজ ১ লা জুলাই এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি তে তারা এর প্রতিবাদ জানান।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

সকল ধরনের গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি এবং জাতীয় ও গণস্বার্থ বিরোধী জাতীয় বাজেট ২০১৯-২০ চুড়ান্ত করায় তীব্র নিন্দা, ক্ষোভ ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট ( এনডিএফ) ময়মনসিংহ জেলার নেতৃবৃন্দ। এনডিএফ’র ময়মনসিংহ জেলা সভাপতি মাহতাব হোসেন আরজু ও সাধারণ সম্পাদক তফাজ্জল হোসেন এক যুক্ত বিবৃতিতে এ প্রেক্ষিতে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে শ্রমিক- কৃষক- জনগণের প্রতি তীব্র আন্দোলন গড়ে তোলার আহবান জানান।
বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়, দেশের গণ-মানুষের দাবি ও আপত্তিকে উপেক্ষা করে ১৩ জুনের প্রস্তাবিত জাতীয় বাজেটকে প্রায় অপরিবর্তিত রেখে গতকাল ৩০ জুন জাতীয় সংসদে পাশ করা হয়। যে পাশকৃত বাজেট ১ জুলাই থেকে কার্যকর করার কথা বলা হয়েছে। একইসাথে, অবাধ লুটপাট ও দুর্নীতিকে আড়াল করে সিস্টেম লসের নামে সবরকমের গ্যাসের দাম আরেক দফা বৃদ্ধি করা হয়েছে। ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পকে বর্ধিত মুল্যের আওতার বাইরে রাখার কথা বলা হলেও প্রায় সব ধরনের গ্রাহককে ঘোষিত নতুন মূল্যহার অনুযায়ী প্রতি ঘনমিটারে গড়ে ২ টাকা ৪২ পয়সা বা ৩২ দশমিক ৮ শতাংশ বর্ধিত মূল্য প্রদান করতে হবে। বিভিন্ন সময়ে গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি বিবেচনায় এটিই এখন পর্যন্ত সর্বোচ্ছ বর্ধিত হার। অথচ পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে একই সময়ে যেখানে রান্নার জন্য ব্যবহৃত তরলিকৃত গ্যাস ( এলপিজি) র দাম কমালো সিলিন্ডার প্রতি ১০০ রুপি ৫০ পয়সা।

বিবৃতিতে আরো উল্লেখ করা হয়, বাজেটে ধনীদেরকে বিভিন্ন রকম সুবিধা দিয়ে সাধারণ জনগণকে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে বিভিন্নরকম কর ও ভ্যাটের আওতায় আনা হয়েছে। ফলে বাজেটের প্রভাবে একদিকে বাড়তি কর, আরেকদিকে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের বর্ধিত মূল্যের কারণে জনগণের অবস্থা দুর্বিসহ হয়ে উঠছে। তার মধ্যে গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি জনগণের কাছে ‘মরার ওপর খাড়ার ঘা’ হয়ে উঠেছে ।
বাজেট বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, প্রায় সোয়া ৫ লক্ষ কোটি (৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি) টাকার নির্ধারিত বাজেটে প্রায় দেড় লক্ষ্য কোটি টাকা ঘাটিতি থাকায় তা পুরণের সুনির্দিষ্ট কোন পরিকল্পনা প্রদান করা হয় নাই। ফলে বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ আশংকা প্রকাশ করেন, বিগত সময়ের মত এবারও দেশি- বিদেশি বিভিন্ন রকম ঋণ গ্রহণ করে জনগণের উপর ঋণের বোঝা বৃদ্ধি করবে। যেখানে গত অর্থ বছরেই সুচকের বিভিন্ন মারপেচে প্রকৃত ঋণকে আড়াল করে জনগণের উপর মাথাপিছু ঋণ ধরা হয়েছিল ৬৭ হাজার ৩৩০ টাকা এবং এ বছর ধরা হয়েছে ৭২ হাজার টাকা। বিগত সময়ের অভিজ্ঞতায় এটা স্পষ্ট যে, বাজেটের এক বড় অংশ অবকাঠামো গত উন্নয়নের নামে ক্ষমতাসীন সরকারের সন্ত্রাস- মস্তান- ঠিকাদার,এমপি ও আমালা- মন্ত্রিরা ভাগ বাটোয়ারা করে নিয়ে যাবে। বাজেটের মাধম্যে স্বৈরতান্ত্রিক সরকার কালো টাকার মালিক, শেয়ার মার্কেট লুটেরা ও ঋণখেলাপিদের রক্ষা করাসহ বিভিন্নরকম সুবিধা দিয়ে জাতীয় অর্থনীতিকে বিভিন্নভাবে সঙ্কটগ্রস্থ করে তুলছে। অথচ বাজেটে শিক্ষা, কৃষি, স্বাস্থ্যসহ জনগণের প্রয়োজনীয় খাতে বরাদ্দ বাড়ানো হয়নি।

প্রকৃতপক্ষে দেশকে আধুনিক তথ্য প্রযুক্তির সাথে তাল মিলিয়ে ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে প্রস্তুত করার জন্য সুনির্দিষ্ট কোন পরিকল্পনা ও পদক্ষেপ বাজেটে প্রতিফলিত হয়নি। বরঞ্চ সর্বোচ্চ প্রবৃদ্ধি অর্জনের খাত কৃষিখাতে সূচকের বিভিন্ন মারপ্যাচে বছর বছর বরাদ্দ কমিয়ে আনা হয়েছে । সাম্রাজ্যবাদ ও একচেটিয়া পুজির স্বার্থে প্রণীত টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যে’র নামে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগের অবাধ সুযোগ করে দিয়ে অবাধ লুটপাটের মৃগয়া ক্ষেত্র করার পরিকল্পনা বাজেটে বিভিন্নভাবে ইংগিত করা হয়েছে। যার মাধ্যমে বিভিন্ন অবকাঠামো বৃদ্ধি করে কথিত উন্নয়নের সাফাই গেয়ে চীন- কানাডা- ইউরোপের সমকক্ষ হওয়ার বিভিন্ন অপলাপ করে জনগণকে বিভ্রান্ত করছে।
এমতাবস্থায় দেশের শ্রমিক-কৃষক-জনগণকে প্রকৃত গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র, সরকার ও সংবিধান প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সাম্রাজ্যবাদ ও সকল দালালদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন-সংগ্রাম গড়ে তোলার কোন বিকল্প নাই বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয় ।
নেতৃবৃন্দ রিফাত-নুসরাতসহ সাম্প্রতিক দেশে হত্যা, খুন, গুম, নারী ও শিশু ধর্ষণ-হত্যা আশঙ্কাজনকভাবে বেড়ে যাওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন। দেড় দশক ধরে সন্ত্রাস ও সম্প্রতি মাদকের বিরুদ্ধে ‘জিরো টলারেন্স’ ঘোষণা বাস্তবায়নের কথা সরকার বললেও মূলত বিচারহীনতার সংস্কৃতি ও রাজনৈতিক পক্ষপাতিত্বে কারণে পরিস্থিতি দিন দিন ভয়াবহ আকার ধারণ করছে বলে বিবৃতিতে বলা হয়।

বার্তা প্রেরক
শাহজাহান মিয়া
দপ্তর সম্পাদক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

spot_img

Related articles

ভালুকায় কাভার্ডভ্যান উল্টে ২জন নিহত

কাভার্ড ভ্যান উল্টে নিহত, ভালুকা, ময়মনসিংহ

ভালুকায় পিকাপ গাড়ীসহ চোর চক্রের ৫ সদস্য আটক 

আফরোজা আক্তার জবা, ভালুকা প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের ভালুকায় ২টি চোরাই পিকাপ গাড়ীসহ চক্রের ৫ সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ।...

ভালুকায় ধান ক্ষেত থেকে গৃহবধূর গলাকাটা লাশ উদ্ধার

আফরোজা আক্তার জবা ভালুকা প্রতিনিধিঃময়মনসিংহের ভালুকায় হাজেরা খাতুন(৩৫) নামে এক গৃহবধূর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে ভালুকা মডেল থানা...

ভালুকায় পথচারীদের মাঝে পানি ও স্যালাইন বিতরণ

আফরোজা আক্তার জবা, ভালুকা প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহের ভালুকায় প্রচন্ড তাপদাহে মানুষের তৃষ্ণা মেটাতে পথচারীদের মাঝে বিশুদ্ধ পানি ও খাবার...